Home » লিড নিউজ » আগ্রহ কমছে ইয়াবায় , বাড়ছে ক্রিস্টাল মেথ নিয়ে

আগ্রহ কমছে ইয়াবায় , বাড়ছে ক্রিস্টাল মেথ নিয়ে

ফয়সাল রাকিব ।।   

নতুন মাদক ক্রিস্টাল মেথ দখল করে নিচ্ছে ইয়াবার স্থান। মরণ নেশা ইয়াবার চেয়ে ১০ গুণ বেশি কার্যকর এ মাদকে ঝুঁকছে ইয়াবা সেবনকারীদের একটি অংশ। ক্রিস্টাল মেথে এ যাত্রা রোধ করতে না পারলেও অচিরেই তা ইয়াবার চেয়ে ভয়াবহ অবস্থা ধারণ করবে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলেন, দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই ক্রিস্টাল মেথের ব্যবহার শুরু হয়।

ইয়াবা তৈরির কাঁচামাল হিসেবে শুরুতে ক্রিস্টাল মেথ আসতে শুরু করে দেশে। পরবর্তীতে তা ইয়াবা সেবনকারীদের কাছে জনপ্রিয়তা লাভ করতে থাকে। ক্রিস্টাল  মেথের উৎপাদনকারী দেশগুলোর অন্যতম হচ্ছে ভারত ও চীন।

ক্রিস্টাল মেথ এ দুটি দেশ থেকে মিয়ানমার যায়। এরপর ইয়াবা চক্রের হোতাদের মাধ্যমে এ দেশে আসছে। ইয়াবা চালানের সঙ্গে ক্রিস্টাল মেথও প্রবেশ করে। এরপর চট্টগ্রামসহ দেশের কয়েকটি জায়গায় তা পাচার করা হয়। ক্রিস্টাল মেথ ইয়াবা তৈরির কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহারের পাশাপাশি শৌখিন ইয়াবা সেবনকারীরা ক্রিস্টাল মেথ ব্যবহারের দিকে ঝুঁকছে।

জানা যায়, দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় গড়ে ওঠে ইয়াবা কারখানা। এ কারখানাগুলোতে ইয়াবা তৈরির কাঁচামাল হিসেবে আসতে থাকে মেথেনফিটামিন বা এমফিটামিন।

যা ক্রিস্টাল মেথ হিসেবেই অধিক পরিচিত। শুরুতে এটা ইয়াবা তৈরির কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত হলেও বর্তমানে ইয়াবা সেবনকারীদের মধ্যে ক্রিস্টাল মেথের চাহিদা বাড়ছে। বর্তমানে মিয়ানমার থেকে প্রায় ক্রিস্টাল মেথের চালান আসছে বাংলাদেশে। যা চট্টগ্রাম হয়েই ছড়িয়ে পড়ছে দেশের বিভিন্ন জায়গায়। চট্টগ্রাম মেট্রো মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শামীম আহমেদ বলেন, ‘ইয়াবার চেয়ে ভয়াবহ মাদক হচ্ছে ক্রিস্টাল মেথ। যা পুরো পৃথিবীতে আইস ড্রাগ হিসেবেই অধিক পরিচিত। এ মাদক গ্রহণের কারণে সরাসরি সেন্টাল নার্ভে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। গ্রহণের পর বেশি ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে বলে গবেষণায় উঠে এসেছে। ক্রিস্টাল মেথ গ্রহণের কারণে অল্প সময়ের মধ্যে বার্ধক্য ভর করে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে অল্প কয়েক মাসের মধ্যেই বিপর্যয় ঘটে যায়। এ সব ক্ষতি আর পূরণ করা যায় না। ’ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েকজন সদস্য জানান, ক্রিস্টাল মেথ বা আইস নিয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের বলতে গেলে কোনো ধারণাই নেই। ক্রিস্টাল মেথ দেখতে অনেকটা চিনির দানার মতো। তাই চিনি বলে উড়িয়ে দেবে যে কেউ। পরীক্ষা করা কিংবা অভিজ্ঞ লোকজন ছাড়া ক্রিস্টাল মেথ চেনার কথা না অন্য কারোর।

পাঠকের মতামত...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*