Home » অপরাধ » মা-মেয়ে নির্যাতন : ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

মা-মেয়ে নির্যাতন : ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

বাংলার কন্ঠস্বর // চকরিয়া উপজেলায় আলোচিত মা-মেয়ে নির্যাতনের ঘটনার মামলার প্রধান আসামি হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিরানুল ইসলাম মিরানসহ আটজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। বুধবার দুপুরে এ আদেশ জারি করা হয়।

চকরিয়া জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত কর্তৃক স্বপ্রণোদিত হয়ে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে। চকরিয়ার জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের আইনজীবী মোহাম্মদ মিজবাহ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২৩ আগস্ট মা-মেয়ে নির্যাতনের ঘটনার পর চকরিয়া উপজেলার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট রাজিব কুমার দে স্বপ্রণোদিত হয়ে এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মতিউল ইসলামকে। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ সাক্ষীদের জবানবন্দী নিয়ে মামলার সত্যতা পাওয়ার পর আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

বুধবার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তা আমলে নিয়ে মা-মেয়ে নির্যাতনের মামলায় জড়িত প্রধান আসামি হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানসহ আটজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

উল্লেখ্য, গত ২১ আগস্ট দুপুর ১টার সময় হারবাং ইউনিয়নের বৃন্দাবনখিল গ্রামে গরু চুরির অপবাদ দিয়ে মা পারভীন বেগম (৪০), মেয়ে সেলিনা আক্তার (২৮), রোজিনা আক্তার (২৫), ছেলে মো: ইমরান (২৯) ও মোহাম্মদ ছুট্টুকে আটক করে স্থানীয় লোকজন। পরে তাদেরকে কোমরে রশি বেঁধে মারধর করে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আসে। ওই সময় ইউপি চেয়ারম্যান নিজেও তাদেরকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। এ সংবাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর শুরু হয় তোলপাড়। এ ঘটনার পর নির্যাতনের শিকার মা পারভীন বেগম ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামি করে মামলা করলেও মামলায় এজাহার নামীয় তিনজন আসামি ছাড়া প্রধান আসামি মামলা দায়েরের ১৯ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও গ্রেফতার হয়নি।

এদিকে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান দাবি করেছেন, মামলা দায়েরের পর থেকে প্রধান আসামি ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরানসহ সন্দেহভাজন অধিকাংশ আসামি এলাকা ছেড়েছে। তবে তাদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 44 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*