Home » সর্বশেষ সংবাদ » দুর্গাপুজায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়ে প্রাণ হারালেন যুবক

দুর্গাপুজায় শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়ে প্রাণ হারালেন যুবক

বাংলার কন্ঠস্বর // বরিশালের গৌরনদী উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের পংকজ বৈদ্য (৩৫) দুর্গাপুজায় স্ত্রীসহ শ্বশুর বাড়ি পার্শ্ববর্তী আগৈলঝাড়ায় রোববার বিকেলে বেড়াতে গিয়ে সোমবার সকালে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরল। পংকজকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন হত্যা করেছে বলে দাবি করছেন তার পরিবারের সদস্যরা। আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে বরিশাল মর্গে প্রেরণ করেছে। 

জানা গেছে, উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের প্রিয় লাল বৈদ্যর ছেলে পংকজ বৈদ্য রোববার বিকেলে পুজা উপলক্ষে তার স্ত্রী মিতু বৈদ্যকে (২০) নিয়ে আগৈলঝাড়া উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামে শ্বশুর রবি হালদারের বাড়ি বেড়াতে আসে। গতকাল সোমবার সকালে পংকজ স্ত্রী মিতুর কাছে পানি খেতে চায়। স্ত্রী তাকে পানি এনে দিলে ওই পানি পান করার সময় পংকজের গলায় আটকে গিয়ে সে অসুস্থ হয়ে পরে। তাৎক্ষণিক পংকজকে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক সুভাষ ভক্তর কাছে নিলে তিনি পংকজকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার সিদ্ধান্ত দেন। তাৎক্ষণিক পংকজকে আগৈলঝাড়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. ফয়সাল ফাহাদ চৌধুরী পংকজকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে পংকজের মা তারা রানী বৈদ্য গতকাল সোমবার সকালে হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, শ্বশুর পরিবারের সাথে পংকজের সু-সম্পর্ক ছিল না। তাই তার ছেলেকে ওই বাড়িতে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করার অভিযোগ করেন তিনি। খবর পেয়ে ওসি (তদন্ত) মাজহারুল ইসলাম হাসপাতালে গিয়ে পংকজের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রব হাওলাদার হাসপাতালে গিয়ে পংকজের স্বজনদের সাথে কথা বলেছেন।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 62 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*