Home » সর্বশেষ সংবাদ » দেশে ফিরে ছেলের মুখ দেখা হলো না ওয়াহিদের

দেশে ফিরে ছেলের মুখ দেখা হলো না ওয়াহিদের

বাংলার কন্ঠস্বর // সৌদি আরব থাকেন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার আবদুল ওয়াহিদ। আগামী ২ নভেম্বর দেশে ফেরার কথা ছিল তার। দেড় বছর বয়সী ছোট ছেলেকে দেখার জন্য উদগ্রীব ছিলেন ওয়াহিদ। কিন্তু তার সে ইচ্ছা পূরণ হলো না, গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে সৌদি আরবের জেদ্দার আল-সালাম এলাকায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন তিনি।

নিহত আবদুল ওয়াহিদ বিশ্বনাথ উপজেলার সদর ইউনিয়নের সদলপুর গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে। প্রায় ১৮ বছর ধরে ওয়াহিদ সৌদি আরবের জেদ্দায় বসবাস করে আসছিলেন। তিনি সেখানে হাউজ ড্রাইভার হিসেবে কাজ করতেন।

সড়ক দুর্ঘটনায় আবদুল ওয়াহিদের নিহত হওয়ার বিষয়টি দৈনিক আমাদের সময়কে নিশ্চিত করেছেন দেশে থাকা তার ছোট ভাই আবদুল আজিজ। তিনি বলেন, ‘গতকাল বৃহস্পতিবার সৌদি সময় সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে আমার মেজো ভাই আবদুল ওয়াহিদ গাড়ি চালিয়ে তার সৌদি কফিলের (যে বাসার হাউজ ড্রাইভার ছিলেন তার মালিক) মেয়েকে নিয়ে মাদ্রাসায় যাচ্ছিলেন। কিছু দূর যাওয়ার পর জেদ্দার আল-সালাম এলাকার ট্রাফিক সিগন্যাল দেখে তিনি গাড়ি থামান। এ সময় তার সামনে একটি ও পেছনে তিনটি গাড়ি ছিল। ঠিক একই সময়ে তাদের গাড়ির পাশে এসে একটি পানির ট্যাঙ্কার থামলে পরে ট্যাঙ্কারটির একটি চাকা পাংচার হয়ে যায়। ফলে, সেটি কাত হয়ে ওয়াহিদের গাড়িসহ অন্য গাড়িগুলোর ওপর পড়ে গিয়ে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই আবদুল ওয়াহিদ ও তার কফিলের মেয়ে মারা যান। আহত হন অন্য গাড়িগুলোতে থাকা বেশ কয়েকজন।’

তিনি বলেন, ‘মেজা ভাই সর্বশেষ দুই বছর আগে ছুটিতে দেশে এসেছিলেন। তার নয় বছর ও দেড় বছর বয়সী দুই ছেলে রয়েছে। ছোট ছেলেকে কাছে থেকে দেখা হয়নি বলেই দেশে ফিরতে উদগ্রীব ছিলেন তিনি। গত রমজান মাসে দেশে ফিরতে চেয়েছিলেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে সে সময় ফিরতে পারেননি।’

এদিকে, সৌদি আরবে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আবদুল ওয়াহিদের গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। বারবার কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তানসহ পরিবারের সদস্যরা। বাড়িসহ পুরো গ্রামেই নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 47 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*