Home » অপরাধ » মাদ্রাসাছাত্রকে বলৎকার, একই মাদ্রাসার ২ কিশোর শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

মাদ্রাসাছাত্রকে বলৎকার, একই মাদ্রাসার ২ কিশোর শিক্ষার্থী গ্রেপ্তার

বাংলার কন্ঠস্বর // নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুরে এবার ১০ বছরের এক মাদ্রাসাছাত্রকে বলৎকারের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই শিশু ছাত্রের বাবা একই মাদ্রাসার অপর দুই শিক্ষার্থীকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় এ মামলা করেন। এরপরই ওই দুই শিক্ষার্থীক গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নির্যাতনের শিকার শিশুটি স্থানীয় হাফেজ মহিউদ্দিন (রহ.) তাহফিজুল কোরআন হাফিজিয়া মাদ্রাসার নূরানী বিভাগের মাজ্রা প্রথম জামাতের ছাত্র।

থানা সূত্র জানায়, রোববার মধ্যরাতে মামলাটি দায়ের হওয়ার পরই পৃথক পৃথক স্থানে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় মামলার এজাহারভুক্ত আসামি সিফাত ও হাসানকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের মধ্যে সিফাত নোয়াখালী পৌরসভার কাজী কলোনীর বাসিন্দা এবং ওই মাদ্রাসার হেফজ্ বিভাগের ছাত্র। অপর আসামি হাসান একলাশপুর গ্রামের বসিন্দা।

শিশুটির বাবা জানান, কোরআনের হাফেজ করার উদ্দেশ্যে তার ছেলেকে এক বছর আগে ওই মাদ্রাসায় ভর্তি করান। সে মাদ্রাসায় আবাসিক ছাত্র হিসেবে থেকে পড়ালেখা করতো। গত শুক্রবার ছেলের সঙ্গে দেখা করতে মাদ্রাসায় যায় তিনি। এ সময় শিশুটি তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য বাবার কাছে কান্নাকাটি করে।

পরে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসলে সে জানান, হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী সিফাত ও হাসান দীর্ঘদিন থেকে বেশ কয়েকবার তাকে বলৎকার করে আসছে। মাদ্রাসার বড় হুজুরকে এ বিষয়ে জানালেও হুজুর কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তাকে হুমকি দিয়েছে কাউকে না জানানোর জন্য। এমনকি শিশুটি অসুস্থ হলেও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ তাকে কোন ধরনের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেনি।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান শিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলার পরপরই আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও তদন্ত পূর্বক কারও সম্পৃক্ততা থাকলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 55 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*