Home » বরিশাল » বরগুনা » ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত কিশোর আসামিদের মধ্যে তিন মেধাবী মুখ

১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত কিশোর আসামিদের মধ্যে তিন মেধাবী মুখ

বাংলার কন্ঠস্বর \\ বরগুনার বহুল আলোচিত চাঞ্চল্যকর শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ১৪ কিশোর আসামির মধ্যে রয়েছেন জিপিএ-৫ পাওয়া তিন মেধাবী মুখ। পিএসসি, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় তিনজনই পেয়েছে গোল্ডেন জিপিএ-৫।

জানা যায়, পড়ালেখার পাশাপাশি ক্রিকেট, হ্যান্ডবল, দৌড়, দাবা ও হকি খেলায় পারদর্শিতা রয়েছে সাজাপ্রাপ্ত কিশোরদের মধ্যে অনেকের। বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের আয়োজিত বাংলাদেশ ইয়ূথ গেমস্-১৮-এ হ্যান্ডবল খেলোয়াড় হিসেবে অংশগ্রহণকারী রয়েছে একজন। অভিযুক্তদের মধ্যে দু’জন সুযোগ পেয়েছে বরগুনা জেলা ক্রিকেট ও হকি দলেও।

কেউ কেউ বলছেন, সন্তানের অবক্ষয়ের পেছনে শুধু পরিবারই নয়, বরং সমাজ দায়ী। সামাজিক অবক্ষয়, রাজনৈতিক মেরুকরণ আর সর্বনাশা মাদকের ছোবলে অদম্য মেধাবী ও প্রতিভাবান এসব কিশোর আজ অন্ধকার জগতে। সামাজিক এ সঙ্কট নিরসনে দায়িত্ব নিতে হবে সংশ্লিষ্ট সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকেই। এমনটাই মনে করেন বরগুনার স্থানীয় সচেতন মহল।

অনেকের মতে, স্কুল ও কলেজগামী শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে অহেতুকভাবে জড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। বাধ্য করা হয় রাজনৈতিক মিছিল, মিটিংয়ে অংশ নিতে। এমনকি শিক্ষকদেরকেও চাপে ফেলে এ সকল কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করতে হুকুম জারি করা হয়। ফলে বিপাকে পড়ছে এমন অনেক শিশু-কিশোর। অজান্তেই অনেকেই জড়িয়ে যায় বিভিন্ন মামলা- মোকদ্দমায়। জীবন হয়ে যায় অন্ধকারাচ্ছন্ন। গড়ে ওঠার আগেই ভেঙে যায় জীবনের বড় স্বপ্নগুলো। হয়ে ওঠে পরিবার তথা সমাজের সবথেকে নষ্ট একটি সন্তান। আসলে এ নষ্টের পেছনে কী শুধু পরিবার কিংবা ওই শিশুটিই দায়ী?

জানা যায়, পুলিশের খাতায় রিশানের অপরাধের চিত্র উঠে এলেও উঠে আসেনি একজন অদম্য মেধাবী রিশানের ঈর্ষণীয় ফলাফলের তথ্য। উঠে আসেনি পিএসসি, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় তার গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়ার খবর। একজন মেধাবী রিশানের অপরাধী হয়ে ওঠার গল্পও উঠে আসেনি। শুধু রিশান নয়, পিএসসি, জেএসসি ও এসএসসিতে রিশানের মতো গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে এ মামলার অপর দুই কিশোর আসামি মো: রাকিবুল হাসান রিফাত হাওলাদার ও মো: নাঈম।

রিশান ফরাজীর মা রেশমা বেগম কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, বিগত পরীক্ষার মতোই এইচএসসি পরীক্ষায় অটোপ্রমোশন দেয়া হয়েছে। এখন রিশান এইচএসসিতেও গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাবে। রিশান সবসময় বলতো ‘আম্মু আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ব।’ অথচ নষ্ট রাজনীতির কারণে আমার মেধাবী ছেলের জীবনটা এলোমেলো হয়ে গেল।

এ বিষয়ে বরগুনা জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহবুবুল বারী আসলাম বলেন, রিফাত হত্যা মামলায় ১৪ জন কিশোর আসামি জড়িয়ে গেছে। এদের মধ্যে অনেকেই সম্ভাবনাময় অদম্য মেধাবী। এরকম মেধাবীরাই শিক্ষাজীবন শেষে বড় পদে আসীন হবেন। অথচ উঠতে গিয়েই দেবে গেলো জীবনের এক মহামূল্যবান সময় ও অংশ।

এ বিষয়ে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট বরগুনার সভাপতি অ্যাডভোকেট মো: শাহজাহান বলেন, সামাজিক দায়িত্ব, রাজনৈতিক নেতৃত্বের দায়িত্ব ও রাষ্ট্রের দায়িত্বের মাধ্যমে এরকম মেধাবীদের আমরা গড়ে তুলতে পারছি না। পরিবারের যে দায়িত্ব পালন করার কথা, অনেক সময় সামাজিকভাবে তারাও ওই দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ হন। এর ফলে মেধাবীরা বিপথগামী হচ্ছে। এ দায় শুধু পরিবারের নয়, এ দায় সমাজের, রাষ্ট্রেরও।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 37 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*