ঢাকাThursday , 7 April 2016
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. করোনা আপডেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. গণমাধ্যম
  10. চট্টগ্রাম
  11. জাতীয়
  12. ঢাকা
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. প্রচ্ছদ
  15. প্রবাসে বাংলাদেশ

আরও এক মামলায় গ্রেপ্তার মাহমুদুর রহমান

Link Copied!

বাংলার কন্ঠস্বরঃ

পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় হওয়া একটি মামলায় দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ।

 

বুধবার এ মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানোর সঙ্গে সঙ্গে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

 

২০১৩ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি দায়ের করা এ মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার এসআই আজিজুল ইসলাম বেলা ১১টার দিকে কারাগারে থাকা মাহমুদুর রহমানকে আদালতে হাজির করে গ্রেপ্তারের আবেদন করেন।

 

মাহমুদুরের অন্যতম আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, একই সঙ্গে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ।

 

ঢাকা মহানগর হাকিম ওয়াইজ কুরুনি খান চৌধুরী গ্রেপ্তারের আবেদন গ্রহণ করে রিমান্ড আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ১২ এপ্রিল দিন ধার্য করেন।

 

কোতোয়ালি থানার বাবুবাজার জামে মসজিদের সামনে পুলিশের ওপর হামলা এবং ককটেল ও গুলি ছোড়ার অভিযোগে এ মামলাটি হয়েছিল।

 

এ মামলার রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, ওই দিন বাবুবাজারে ৫০ থেকে ৬০ জন জামায়াতে ইসলামীর কর্মী ২৪ ফেব্রুয়ারি হরতালের সমর্থনে ও গণজাগরণ মঞ্চের বিরুদ্ধে উসকানিমূলক স্লোগান দিয়ে মিছিল বের করেন। তখন পুলিশ বাধা দিলে মিছিলকারীরা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন এবং ককটেল ও গুলিবর্ষণ করে পুলিশকে আহত করে।

 

মাহমুদুর রহমানের পত্রিকায় উসকানিমূলক সংবাদ প্রকাশের কারণে এমন ঘটনা সংঘটিত হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে তার বিরুদ্ধে বেশ কিছু তথ্য ও সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাই তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন।

 

এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আগে মহানগর হাকিম গোলাম ২০১৩ সালের ৫মে মতিঝিল এলাকায় হেফাজতে ইসলামীর তাণ্ডবের একটি মামলায় মাহমুদুরকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে সাতদিন হেফাজতে নেওয়ায় একটি আবেদন শুনানি শেষে নাকচ করে দেন।

 

মতিঝিল থানার এ মামলার তদন্তকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ফজলুর রহমান এ রিমান্ড আবেদন করেছিলেন।

 

এই মামলায় মাহমুদুরের আইনজীবী বেলাল হোসেন জসীম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে হেফাজতের আবেদনটি নাকচ করা হলে কোতয়ালি থানার মামলাটিতে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করা হয়।

 

“মতিঝিল এলাকায় মামলার ঘটনা যখন ঘটে তখন তিনি কারাগারে ছিলেন বলে বিচারক গোলাম নবী সে আবেদন নাকচ করেন,” বলেন এ আইনজীবী।

 

আইনজীবী বেলাল হোসেন জসীম আরও জানান, মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে করা ৭০টি মামলার মধ্যে ১৭টি মামলা সচল রয়েছে।

 

বর্তমানে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে থাকা এই আসামিকে শুনানির সময় বুধবার আদালতে নিয়ে আসা হয়।

 

এর আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানার নাশকতার এক মামলায় দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে পুলিশ হেফাজতে না নিয়ে কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয় আদালত।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।