ঢাকাWednesday , 2 March 2016
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. করোনা আপডেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. গণমাধ্যম
  10. চট্টগ্রাম
  11. জাতীয়
  12. ঢাকা
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. প্রচ্ছদ
  15. প্রবাসে বাংলাদেশ

আহত-৯ ॥ আটক-৫ বরিশাল বিশ্ববিদ্যাল শিক্ষার্থী-বহিরাগত সংঘর্ষ

Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টর ॥ মোবাইল চৃুরির ঘটনার জের ধরে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও বহিরাগতদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরীর পুলিশ লাইন এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ লাঠিচার্য ও ৯ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের চার শিক্ষার্থী, পুলিশের তিন সদস্য ও বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল বাংলা ভিশন এর এক সংবাদ কর্মীসহ গুরুতর আহত হয়। আহতরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের ছাত্র জিসান আহমেদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র শফিকুর রহমান, গনিত বিভাগের ছাত্র আহমেদ সিফাত, পুলিশ এর সহকারী উপ-পরিদর্শক সত্য রঞ্জন দাস, কনস্টবল আরাফাত ও ফিরোজ। বিশ্ববিদ্যালয়ের আহত শিক্ষার্থীদের শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও পুলিশ সদস্যদের পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীন আহমেদ, আইন বিভাগের ছাত্র লুৎফর রহমান, রসায়ন বিভাগের ছাত্র এনামুল ইসলাম ও মো সজীবসহ পাচজনকে আটক করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দেয়া তথ্যানুযায়ী, তিন দিন পূর্বে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিটি ক্যাম্পাস সংলগ্ন হট প্লেট রেস্টুরেন্টের কর্মচারী সজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জিসান আহমেদ এর একটি মোবাইল চুরি করে। এ ঘটনায় অভিযোগ দেয়া হলে ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক কামরুল আহসান রুমী তার কর্মচারী সজিবকে চাকুরীচ্যুত করে। বিষয়টি সজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের উল্টোদিকের সরকারি পলিটেকনিক কলেজের কতিপয় ছাত্রলীগ কর্মিকে জানায়। বুধবার জিসান তার বন্ধুদের নিয়ে পুলিশ লাইন এলাকার রিভার ক্যাফে রেস্তোরায় খেতে গেলে সেখানে বসে পুর্ব পরিকল্পনা অনুসারে সজীব তার লোকজন নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। বিষয়টি মুহুর্তের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিটি ক্যাম্পাসে ছরিয়ে পরলে জিসান এর সহপাঠিরা এসে লাঠিসোঠা নিয়ে সজিব বাহিনীর ওপর হামলা চালায়। এসময় রিভার ক্যাফে ও বিএফজি রোস্তেরা ভাংচুরের চেষ্টা চালালে পুলিশ তাদের নিবৃত করার চেষ্টা করে। তখন শিক্ষার্থীরা পুলিশের ওপর ইট পাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ বেধে যায়। পুলিশ এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে লাঠিচার্য ও ৯ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

হামলার শিকার বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের ছাত্র জিসান আহমেদ জানান, সজীব এর বিরুদ্ধে মোবাইল চুরির অভিযোগ করা হলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার ও বন্ধুদের ওপর হামলা চালায়। তার সাথে পলিটেকনিক কলেজের ছাত্রলীগ কর্মীরা ছিলো। সজীব বহিরাগত হওয়া সত্বেও ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে এর পূর্বে বেশ কয়েকটি মোবাইল ছিনতাই করেছে বলে অভিযোগ তার।

কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতাউর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের হামলায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে লাঠিচার্য ও ৯ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। হামলার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিটি ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে উচ্চপদস্থ্য কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনার পর পিরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এসএম ইমামুল হক বলেন, ঘটনাটি ঘটেছে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরে। এরপরও এ ঘটনা কেন ঘটেছে তা জানার জন্য প্রক্টরকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি বিস্তারিত জানানোর পরে পরবর্তী ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।