ঢাকাWednesday , 3 February 2016
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. করোনা আপডেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. গণমাধ্যম
  10. চট্টগ্রাম
  11. জাতীয়
  12. ঢাকা
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. প্রচ্ছদ
  15. প্রবাসে বাংলাদেশ

ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণ ৯ ফেব্রুয়ারি খুবিতে যাচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী

Link Copied!

খুলনা: খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুবি) দীর্ঘদিন পর এবার কেন্দ্রীয়ভাবে একইদিনে একই অনুষ্ঠানে ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষে স্নাতক/স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি ওরিয়েন্টেশন (পরিচিতি) ও নবীনবরণ অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

সভাপতিত্ব করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন ভর্তিকৃত প্রায় এক হাজার ১১৮ জন ছাত্র-ছাত্রী  অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে পরিচিতির পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য অনুসারে শপথ গ্রহণ করবেন।

খুবির জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আতিয়ার রহমান বুধবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বাংলানিউজকে এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, প্রথা অনুযায়ী ওইদিন উপাচার্য তাদের শপথ বাক্য পাঠ করাবেন। এরপর হবে নবীনবরণ অনুষ্ঠান। ফলে দিনটি থাকবে উৎসবমুখর। ১৯৯০-৯১ শিক্ষাবর্ষে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালু হওয়ার পর প্রথম ৩ থেকে ৪ বছর পর্যন্ত কেন্দ্রীয়ভাবে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গত প্রায় দু’দশক ধরে প্রত্যেক স্কুলে আলাদা আলাদাভাবে ওরিয়েন্টেশন ও প্রত্যেক ডিসিপ্লিনে বিভিন্ন দিনে নবীনবরণ অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এমনকি অনেক স্কুলের ডিসিপ্লিনগুলোর মধ্যে আলাদা আলাদাভাবেও ওরিয়েন্টেশন হচ্ছিলো। এর ফলে একদিকে প্রচুর সময় ও অর্থ ব্যয় হয়।

এ পরিস্থিতিতে সময় ও অর্থ সাশ্রয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান নতুন করে কেন্দ্রীয়ভাবে একইদিনে ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণের এ উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তিনি বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির সভায় আলোচনা করেন।

ভর্তি কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছর একইসঙ্গে ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এর ফলে নতুন ভর্তি হওয়া সব শিক্ষার্থী একইদিনে পরিচিত হওয়ার পাশাপাশি নবীনবরণের মতো উৎসব উপভোগ করতে পারবে। আর বিশেষ করে সময়ের সাশ্রয় হওয়ায় শিক্ষাকার্যক্রমের ক্ষেত্রে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় আরও এগিয়ে যাবে বলে সবার প্রত্যাশা।

কয়েকমাস ধরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস রয়েছে উৎসবমুখর। গত ২৫ নভেম্বর ৫ম সমাবর্তন, ২৫ ডিসেম্বর রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠান ছাড়াও বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালন, হলগুলোর অনুষ্ঠান, শীতের পিঠা উৎসবসহ নানামাত্রিক আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ, যা ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীসহ সবার মাঝে সুন্দর আবহ আরও অটুট করছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।