1. sarderamin830@gmail.com : Mohammed Amin : Mohammed Amin
  2. banglarkonthosor24@gmail.com : বাংলার কন্ঠস্বর : বাংলার কন্ঠস্বর
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের দুই রকম প্রয়োগ হচ্ছে : রিজভী - বাংলার কন্ঠস্বর ।। BanglarKonthosor
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:০৭ অপরাহ্ন
নোটিশ :
দেশর সকল জেলা-উপজেলা,থান-বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি কলেজ সমূহে প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে...মেধাবীদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বায়ন করা যাচ্ছে । যোগাযোগ: ০১৭৭২০২৯০৪৮।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের দুই রকম প্রয়োগ হচ্ছে : রিজভী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২৯ বার
নিজস্ব প্রতিবেদক // দেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের দুই রকম প্রয়োগ হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ রোববার দুপুরে এক অনুষ্ঠানে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এই অভিযোগ করেন।

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় জাতীয়তাবাদী অনলাইন এক্টিভিস্টদের উদ্যোগে প্রয়াত অললাইন এক্টিভিস্ট এম এম ওবায়দুর রহমান, কামারুল হাসান শাহীন, তনিমা সোমা, শান্ত ইসলাম জুম্মনসহ অন্যান্যদের স্মরণে এই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

রিজভী বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সরকার করেছে- এটা একটা জুলুমের আইন করা হয়েছে। অর্থ্যাৎ আপনি এই আইনে বিরোধী মতের লোক যদি মামলা করে দেখবেন যে, সকালে মামলা নেবে বিকেলে বলবে যে, খারিজ করে দিয়েছে কোর্ট। আর আওয়ামী লীগের কোনো নেতা বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে এই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করবেন দেখবেন সেই মামলার প্রথম থেকে সুন্দর প্রক্রিয়া চলবে। বিএনপির সেই লোকটিকে হাজির করতে আদালতে, পুলিশ গ্রেপ্তার করবে, কারাগারে পাঠাবে, তারপরে জামিনের জন্য বার আবেদন করবে তার আইনজীবী- জামিন দেবে না।অনেক দিন ছয় মাস একছর, দেড় বছর পর হয়ত সে মুক্তি পাবে।’

দেশের বর্তমান অবস্থাকে ‘ভয়ঙ্কর শ্বাসরুদ্ধকর’ অভিহিত করে রিজভী বলেন, ‘আমরা এমন একটি সমাজে বাস করি যেখানে কথা বলা যায় না, বাক স্বাধীনতা নেই।ডানে-বামে সব সময় তাকাতে হয় কেউ আমাকে অনুসরণ করছে কিনা বা আমি কারো দ্বারা অনুসরিত হচ্ছি কিনা।’

বিএনপি নেতা রিজভী বলেন, ‘এই ভীতির মধ্যে, এরকম আশঙ্কার মধ্যে এই ধরনের এক প্রচণ্ড ভয় এবং শঙ্কার মধ্যে আমাদের দিন যখন অতিবাহিত হয়, আমাদের রাত যখন অতিবাহিত হয় তখনই আমাদের জাতীয়তাবাদী দর্শনের এই তরুণরা আজকের জগদ্দল পাথর ফ্যাসিবাদ, নাতসীবাদ, পৃথিবীর কুখ্যাত আইনকে করাত্ব করে জনগণের ওপর ভয়ঙ্কর অত্যাচার চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে যে অস্ত্র তারা (অ্যাক্টিভিস্টরা) হানে এটা নিঃসন্দেহে গোটা জাতিকে প্রেরণা দেয় এবং আমরাও অনুপ্রাণিত হই।’

বর্তমান সরকারের আমলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সত্য কথা বলার জন্য অ্যাক্টিভিস্টদের ওপর নির্যাতন-দমননীতির কঠোর সমালোচনা করেন তিনি। একই সঙ্গে প্রয়াত অ্যাক্টিভিস্টদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন রিজভী।

কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন বিএনপির সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ওয়াহিদুজ্জামান অ্যাপেলো, আবদুস সালাম আজাদ, আমিরুজ্জামান শিমুল, হায়দার আলী লেলিন, কাজী রফিক, ওবায়দুর রহমান টিপু প্রমুখ।

এ পোষ্টটি ভাল লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো সংবাদ