ঢাকাFriday , 19 February 2016
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. করোনা আপডেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. গণমাধ্যম
  10. চট্টগ্রাম
  11. জাতীয়
  12. ঢাকা
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. প্রচ্ছদ
  15. প্রবাসে বাংলাদেশ

না.গঞ্জে ৩৯ দিন পর অপহৃত শিশু উদ্ধার, আটক ৪

Link Copied!

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় অপহরণের ৩৯ দিন পর লিয়ন নামে দুই বছরের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ সময় এ ঘটনায় জড়িত নারীসহ ৪জনকে আটক করা হয়।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানা এলাকার দুর্গাপুর থেকে অপহৃতকে উদ্ধার ও জড়িতদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন-রংপুরের কোতয়ালি থানার জানপুর এলাকার পারভীন ওরফে সোমা আকতার (২৮), তার স্বামী মজনু মিয়া (৩৬), কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার দুর্গাপুর এলাকার মৃত আক্রম আলীর ছেলে আনোয়ার হোসেন (৩৫) ও একই এলাকার মৃত আলী আহম্মদের ছেলে মো. জামান (৫৫)।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহিদুল ইসলাম জানান, কিশোরগজের বাজিতপুরের দাশাআটির দিলু মিয়া তার স্ত্রী বিলকিসসহ শিশু সন্তান নিয়ে ফতুল্লার আলীগঞ্জ এলাকার বস্তিতে থেকে পাথর ভাঙার কাজ করেন। আর আলীগঞ্জের একই বস্তিতে থাকেন সোমা ও তার স্বামীও।

গত ১০ জান‍ুয়ারি বিকেলে দিলু মিয়ার কর্মস্থল থেকে শিশু লিয়ানকে বাসায় নিয়ে আসার কথা বলে অপহরণ করে তারা।

এ ঘটনার একদিন পর সোমা ফোন করে দিলুর কাছে ১০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। পরে মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে সোমা ও তার স্বামী শিশুটিকে কুমিল্লায় আনোয়ার আর জামানের কাছে বিক্রি করে দেয়।

এ ঘটনায় ১ ফেব্রুয়ারি দিলু ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। এরপর একটি মোবাইল কলের স‍ূত্র ধরে সোমা ও তার স্বামী মজনুকে গ্রেফতার করা হয়।

‘তাদের দেওয়া তথ্যমতে শুক্রবার সকালে কুমিল্লার সদর দক্ষিণের দুর্গাপুর এলাকা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে আনোয়ার ও জামানকে গ্রেফতার করা হয়,’ বলেন তিনি।

এ ঘটনায় উদ্ধার শিশুর বাবা দিলু বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেনে বলে জানান এসআই শাহিদুল।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।