ঢাকাTuesday , 5 January 2016
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন ও আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লুসিভ
  6. করোনা আপডেট
  7. খুলনা
  8. খেলাধুলা
  9. গণমাধ্যম
  10. চট্টগ্রাম
  11. জাতীয়
  12. ঢাকা
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. প্রচ্ছদ
  15. প্রবাসে বাংলাদেশ

বরিশাল বিএম কলেজ অধ্যক্ষের কার্যালয়ে ছাত্রলীগের হাঙ্গামা

Link Copied!

স্টাফ রিপোর্টর ॥ বরিশাল বিএম কলেজে রাজনৈতিক  ইস্যু নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অধ্যক্ষের কার্যালয়ে হাঙ্গামা চালিয়েছে। প্রতিষ্ঠাবাষির্কীতে কর্মী আনা নেয়ায় বাধাঁ দেয়াকে কেন্দ্র করে এ হাঙ্গামা ঘটেছে বলে জানা গেছে। অবশ্য অপর একটি সূত্র দাবী করেছে কলেজের দরিদ্র তহবিলের টাকা প্রকৃত ছাত্ররা না পাওয়ায় ছাত্রলীগের একাংশ গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে গিয়ে হট্টোগোল বাধাঁয়। এমনকি অধ্যক্ষকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে। অধ্যক্ষ প্রফেসর স.ম ইমানুল হাকিম এর উপস্থিতিতে ওই ঘটনার সময় কোতয়ালী মডেল থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

জানা গেছে, ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবাষির্কী উপলক্ষে র‌্যালীতে ছাত্রীদের আনা নেয়াকে কেন্দ্র করে বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রীনিবাসে দুই গ্র“প ছাত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটিা  ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনার রেশ ধরে গতকাল অধ্যক্ষকে গালিগালাজ করা হয়েছে। তবে অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, দরিদ্র তহবিলের টাকা না দেয়া ছাত্রলীগের একটি গ্র“প অধ্যক্ষের কার্যালয়ে হাঙ্গামা করেছে। এসময় অধ্যক্ষকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজও করা হয়েছে। কলেজের মুসলিম হলের বোর্ডার ও রাস্ট্রবিজ্ঞান ৩য় বর্ষের ছাত্র কবির হোসেন জানান, ডিগ্রী ও মুসলিম হলের ২৩/২৪ জন দরিদ্র তহবিলের আবেদন জমা দিয়েছে। কিন্তু অধ্যক্ষ সেই টাকা না দেয়ায় তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। ভাংচুরের কোন ঘটনা ঘটেনি। বাকসুর ক্রিড়া সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ মুন্না বলেন, কলেজের ছাত্রদের দারিদ্র তহবিলের টাকা দেয়নি অধ্যক্ষ। তিনি বাকসু ভিপিকে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের টাকা ভুয়া ভাউচারে দিয়ে দিয়েছে। তাই ছাত্ররা হট্টগোল পাকিয়েছে।

বাকসুর সাহিত্য সম্পাদক নুর সাঈদী জানান, প্রতিষ্ঠাবাষির্কীর টাকা চায়ছে ছাত্রলীগের মুন্নারা। টাকা না দেয়ায় অধ্যক্ষকে লাঞ্চিত করেছে তারা। আর দারিদ্র তহবিলের কোন টাকাইতো এখনো কলেজ দেয়নি। বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রীনিবাসের ছাত্রলীগ নেত্রী ও অর্থনৈতি ৩য় বর্ষের ছাত্রী সাদিয়া আফরিন জানান, গত সোমবার ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবাষির্কীর অনুষ্ঠানে তিনি অন্যান্য নেতৃবৃন্দদের নিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় হেনা আক্তার(ছাত্রলীগ নেত্রী ও উদ্ভিদ বিদ্যার ৩য় বর্ষের ছাত্রী) হোস্টেল গেটে তালা মেরে দেয়। এ নিয়ে ঝামেলা হয়েছিল।

কলেজের শিক্ষক সমিতির সম্পাদক এএসএম কায়ুম উদ্দিন আহম্মেদ জানান, ছাত্ররা কথা কাটাকাটি করেছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নিয়ে মেয়েদের হোস্টেলে ঝামেলা হয়েছিল। সে ঘটনায়ই আবার ঝামেলা হয়েছে। তবে তেমন কিছু নয় বলে তিনি জানান। কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মো: শাখাওয়াত হোসেন জানান, নিজেদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়েছে। ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালীতে যাওয়া না যাওয়া নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

এব্যাপারে বিএম কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর স.ম ইমানুল হাকিম জানান, ঝামেলা কি হয়েছে জানা নেই। তারপরেও রাজনৈতিক একটা বিষয় থাকে। দরিদ্র তহবিলের টাকা সর্ম্পকে তিনি জানান, এক টাকাও ছাড়া হয়নি। ছাত্রীনিবাসে(বনমালী গাঙ্গুলী ছাত্রীনিবাস) নিজেদের মধ্যে সমস্য হয়েছিল। এখন ওরা মিলে গেছে। মুলত সবার কথা শুনতে হবে। অনেকে অনেক কথা বলতে পারে তবে তার দপ্তরে কোন ঘটনা ঘটেনি বরে তিনি জানান।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।