Home » রাজনীতি » সফরে ব্যস্ত দু’দলের শীর্ষ নেতারা

সফরে ব্যস্ত দু’দলের শীর্ষ নেতারা

বাংলার কন্ঠস্বর ডেস্কঃ বড় দুটি দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের বেশির ভাগই এখন বিদেশের মাটিতে অবস্থান করছেন। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির শীর্ষস্থানীয় বেশিরভাগ নেতা ঈদের ছুটি, চিকিৎসা কিংবা পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে দেশের বাইরে অবস্থান করছেন। কেউবা সরকারি কাজে বিদেশে যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে এ দুটি বড় দলের শীর্ষ চার নেতার তিনজনই বিদেশের মাটিতে ঈদ পালন করবেন। এরই মধ্যে দুই নেতা বিদেশে গেছেন। অপরজন দুই দিনের মধ্যে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সম্প্রতি ইংল্যান্ডে পাড়ি জমিয়েছেন। অর্ধযুগেরও বেশি সময় ধরে সেখানে অবস্থান করছেন বিএনপির দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা ও ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

বড় ছেলে তারেক রহমান এবং প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর পরিবারের সঙ্গে খালেদা জিয়া লন্ডনে ঈদ করবেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম রবিবার সকালে বাংলাদেশ ত্যাগ করেছেন ইংল্যান্ডের উদ্দেশে। আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় শীর্ষ এ নেতার পরিবার সে দেশেই বাস করেন।

পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে দুই সপ্তাহের লন্ডনযাত্রা তার। আশরাফুল ইসলামের ব্যক্তিগত সহকারী এম সাজ্জাদ হোসেন শাহিন জানান, অনেক দিন আগে থেকেই স্যারের ইংল্যান্ড যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নানা ব্যস্ততার কারণে যাওয়া হয়নি। তাই ঈদ করতে গেলেন তিনি।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চিকিৎসার উদ্দেশে বাংলাদেশ ছেড়েছেন মাস দুয়েক আগে। সিঙ্গাপুরে প্রাথমিক চিকিৎসার পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে চিকিৎসা নিয়ে আবারও সিঙ্গাপুরে ফিরেছেন শনিবার। সোমবার রাতে তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান  জানান, সোমবার রাত ১০টায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তিনি (মির্জা ফখরুল) বাংলাদেশ আসবেন।

এদিকে ২৩ সেপ্টেম্বর সরকারি সফরে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ার কথা রয়েছে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগদানের লক্ষ্যে অনুষ্ঠিতব্য এ সফরের কারণে আওয়ামী লীগ প্রধানের ঈদও সেখানে পালন করতে হবে।

এ মুহূর্তে দেশের বাইরে আছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ও। পদের দিক দিয়ে আওয়ামী লীগের শীর্ষস্থানীয় নেতা তিনি নন। তারপরও আগামীতে দলটির কাণ্ডারি হওয়ার ক্ষেত্রে তার নামই বেশি আলোচনায় রয়েছে। তারও ঈদ পালন হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে।

দল দুটির দায়িত্বশীলদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শীর্ষ নেতারা দেশে ঈদ না করার কারণে দলের পক্ষ থেকে ঈদকেন্দ্রিক তেমন আনুষ্ঠানিকতা থাকছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষ নেতা  বলেন, ঈদে দলীয় কার্যক্রম এমনিতেই স্থবির অবস্থায় থাকে। আর শীর্ষ নেতারা বাইরে থাকায় ঈদকেন্দ্রিক রাজনীতিও তেমন জমবে না।

সম্পাদনাঃ গাজী মামুন আহম্মেদ (বাংলার কন্ঠস্বর )

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 115 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*