Home » অন্যান্য » চট্টগ্রামের বিপক্ষে বরিশালের সহজ জয়

চট্টগ্রামের বিপক্ষে বরিশালের সহজ জয়

বাংলার কন্ঠস্বর ডেস্ক : টোয়েন্টি২০ ম্যাচে ১৭১ রানের টার্গেট অসম্ভব কিছু না, কিন্তু বরিশাল বুলসের বিপক্ষে সেই টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে নিছক আত্নসমর্পন করেছে চিটাগাং ভাইকিংস। ম্যাচের ১ বল বাকি থাকতেই ১৩৭ রানে চিটাগাংকে অলআউট করে ৩৩ রানের সহজ জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল। আর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ঢাকা পর্ব শেষে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকা চট্টগ্রাম ঘরের মাঠে হেরে আরও চাপে পড়েছে।

দু’দিন বিরতির পর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সোমবার দুপুর ২টায় বিপিএলের দ্বিতীয় পর্বের প্রথম খেলায় টস হেরে ব্যাট করতে নামে বরিশাল বুলস। শুরুতেই ১২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়া বরিশালকে টেনে তুলেছিল মেহেদী মারুফ ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের৪০ রানের জুটি। পরে চিটাগাং এর জিয়াউর রহমানের ধাক্কায় ৬৩ রানে ৫ উইকেটের পতন ঘটে বরিশালের। পরে আবার প্রতিরোধের দৃশ্যপটে মাহমুদুল্লাহ, এবার সঙ্গী প্রসন্ন। প্রসন্নকে আউট করে ৬১ রানের জুটি ভেঙ্গেছিলেন মোহাম্মদ আমের। দলীয় ১২৪ রানে আউট হওয়ার আগে ২০ বলে ৩৬ রান করা প্রসন্ন ইনিংসটি সাজান ১ চার ও ৪ ছক্কায়। পরে ৪৫ বলে ৫১ রান করে বিদায় নেন মাহমুদুল্লাহও।

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে বরিশাল বুলসের সংগ্রহ করে ১৭০ রান। স্বাগতিক চিটাগাং ১৭১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধারাবাহিকভাবে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে। ৭৭ রানেই ৬ উইকেট হারানো তামিমদের ম্যাচশেষে ১৩৭ রানের ভদ্রস্ত স্কোরটি দাঁড়িয়েছে মূলত অলরাউন্ডার নাইম ইসলাম ও পেসার আমেরের ব্যাটে। ৪৫ রানের এ জুটি ভাঙ্গেন কোপার, কেবল জুটিই ভাঙ্গেননি; ১৯তম ওভারে আমের ও নাইমকে বোল্ড আউট করে চিটাগাং এর ইনিংসে সবচেয়ে বল আঘাত হানেন তিনি। সে ধাক্কায় ১৯.৫ ওভারেই ১৩৭ রানে শেষ হয়ে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস। আর ৩ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ১১ বলে ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলায় ম্যাচসেরার পুরষ্কারও উঠেছে কোপারের হাতে।

উল্লেখ্য, বিপিএলে চট্টগ্রাম ভাইকিংস ৫ ম্যাচ খেলে ৪টিতেই হেরেছে। আর ৪ ম্যাচ খেলে ৩টিতে জয় পেয়েছে বরিশাল।

 

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 55 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*