Home » বরিশাল » ঝালকাঠি ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু সমাধি ভেঙ্গে জমি দখল চেষ্ঠার অভিযোগ

ঝালকাঠি ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু সমাধি ভেঙ্গে জমি দখল চেষ্ঠার অভিযোগ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি সদর উপজেলার শেখেরহাট ইউনিয়নের রাজপাশা গ্রামের এক হিন্দু পরিবারের জমি দখলের চেষ্ঠা করছে ওই এলাকার ইউপি সদস্য। এমনকি সংখ্যালঘু ওই পরিবারের সদস্যদের প্রতিনিয়ত প্রাণ নাশসহ দেশ ত্যাগের হুমকী দিচ্ছেন ইউপি সদস্য স্বপন খান। কয়েক দিন পূর্বে দলবল নিয়ে এসে হুমকি দিয়ে হিন্দুদের সমাধি ভেঙ্গে ফেলে ওই ইউপি সদস্য ও তার লোকজন। থানা অভিযোগ করে বিচার না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে পুলিশ সুপারের কাছে বিচার প্রার্থনা করেছেন ওই হিন্দু পরিবারের প্রধান প্রদীপ দেবনাথ। লিখিত আবেদন সুত্র ও কাগজপত্র পর্যালোচনা করে জানাগেছে, ২২৫১ দাগের ৪৩ শতাংশ জমি উত্তারাধীকার সুত্রে ভোগ দখল করছে মৃত. লাল মোহন দেবনাথের তিন ছেলে প্রদীপ দেবনাথ, স্বপন দেবনাথ, রতন দেবনাথ ও তার ভাগ্নে নিরঞ্জন দেবনাথ। এর মধ্যে মৃত. লাল মোহন দেবনাথের কাছ থেকে তার বোন মনশা রানী দেবনাথ ৩২ শতাংশ জমি ক্রয় করেন ১৯৬১ সালে। লাল মোহন দেবনাথ ২০১১ সালে মারা যায়। এর পরে গত এক বছর ধরে ওই ৪৩ শতাংশ জমি জোর পূর্বক ভোগ দখলের চেষ্ঠা করছেন ইউপি সদস্য স্বপন খান। বিভিন্ন সময় দলবল নিয়ে ওই জমিতে বেরা দিতে আসে। কয়েক দিন পূর্বে ওই জমির উপরের সুপারি গাছ থেকে সুপারি পেরে নিয়ে যায় স্বপন। এব্যাপরে ওই এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ শালিশ বৈঠকের সুপারি চুরির দায়ে স্বপনের এক হাজার টাকা জরিমানা করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বপন ওই হিন্দু পরিবারের নামে আদালতে মামলা করে এবং শালিশ গণের বিরুদ্ধে উকিল নোটিশ করেন। গত ২৪ নভেম্বর  (মঙ্গলর বার ) সকালে স্বপন খান তার ভাই কালাম খান, স্থানীয় মলেক খানসহ দলবল নিয়ে ওই হিন্দু বাড়িতে এসে জমি দখলের চেষ্ঠা চালায়। এসময় সমাধি ভেঙ্গে ফেলে। এর প্রতিবাদ করলে হিন্দু নারীদের  অশ্লীল ভাষায় গালি দেয়। পুরুষদের হত্যা, দেশ ত্যাগ ও মিথ্যা মামলায় জরিয়ে দেয়ার হুকমী প্রদান করে। এবিষয়ে স্থানীয়রা অবগত আছেন। পরে ওই দিনই হিন্দু  পরিবারটি ঝালকাঠি সদর অভিযোগ করেন। এর পাঁচ দিন পরেও কোন ব্যাবস্থা না নেয়ায় গত রবিবার (২৯ নভেম্বর) পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত আবেদন করে ওই হিন্দু পরিবারটি। এব্যাপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য স্বপন খান বলেন, জমি দখলের বিষয়টি সম্পুর্ন মিথ্যা। ওটা আমাদের জায়গায় ওখানে কোন সমাধি নেই। খালেক খান নামের এক ব্যাক্তির কাছ থেকে হেমায়েত উদ্দিন সুপারির বাগানসহ ওই জমি ক্রয় করেন। তার কাছ থেকে ওই জমি আমি তিন বছরের লিচে নিয়েছি। আমি একজন জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের দিন ঘনিয়ে আসায় আমার প্রতিপক্ষরা ষড়যন্ত্র করছে। ঝালকাঠি থানা ওসি মাহে আলম  বলেন, এব্যাপারে প্রথমে তদন্ত করা হবে। তদন্তে অপরাধ প্রমানিত হলে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 85 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*