Home » অপরাধ » ২০১৫ সালে ইন্টারনেটে যেভাবে মিথ্যাচার হয়েছে

২০১৫ সালে ইন্টারনেটে যেভাবে মিথ্যাচার হয়েছে

বাংলার কন্ঠস্বর ডেস্ক : গত কয়েক বছরের মতো ২০১৫ সালেও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া মিথ্যা এবং ভুল বিভিন্ন ছবি খুঁজে বের করা নিয়ে সাংবাদিকদের ব্যস্ত থাকতে হয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, ২০১৫ সালে অনেক ছবি এবং ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে, আদতে যেগুলো ছিল মিথ্যা এবং ভুল।

ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা ছবি তৈরি করা হয়েছে। কখনো কখনো সদ্য পাওয়া খবরের ক্ষেত্রেও এমনটা হয়েছে, যেখানে খবরের সঙ্গে সম্পর্ক নেই এমন ছবিও বহুবার শেয়ার করা হয়েছে ইন্টারনেটের সামাজিক মাধ্যমে।

নেপালে ভূমিকম্পের হৃদয়বিদারক ছবি

গত এপ্রিলে নেপাল ভূমিকম্পের সময় সবচেয়ে বেশি ছড়িয়ে পড়া ছবিগুলোর একটি এটি।

‘নেপালে চার বছরের ভাই তার দুই বছরের বোনকে আগলে রাখছে’ এই ক্যাপশনের সঙ্গে ছবিটি ফেসবুক এবং টুইটারে শেয়ার হয়েছে অসংখ্যবার। তবে আসলে ছবিটি তোলা হয়েছে ২০০৭ সালে ভিয়েতনামের একটি প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে।

নেপালে ভূমিকম্পের সময় সুইমিংপুলের ভিডিও

ভূমিকম্পের সময় ইউটিউব এবং ফেসবুকে কাঠমান্ডুর একটি হোটেলের সিকিউরিটি ক্যামেরার ফুটেজ উল্লেখ করে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়।

কিছু আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও ভূমিকম্পের তীব্রতা দেখাতে গিয়ে ভিডিওটি ব্যবহার করা হয়। কিন্তু আদতে এই ভিডিওটি বেশ পুরনো। সম্ভবত ২০১০ সালে মেক্সিকোতে ভূমিকম্পের সময় ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছিল।

ইন্সটাগ্রামে ইউরোপে যাওয়ার পথ বর্ণনা করছেন একজন অভিবাসী

গত গ্রীষ্মে ইন্সটাগ্রামে একজন অভিবাসীর সেনেগাল থেকে স্পেনে যাত্রার ছবি আসতে শুরু করে।

ডাকারের বাসিন্দা আবু দিউফের এসব সেলফি ইন্টারনেটে আলোড়ন তোলে এবং হাজার-হাজার মানুষ তাকে ফলো করতে শুরু করে।

তবে শেষ পর্যন্ত ধরা পড়ে যে, এই ছবিগুলো ছিল উত্তর স্পেনের একটি ফটোগ্রাফি উৎসবের প্রচারণা।

আইএস যোদ্ধার সাজে শরণার্থী?

ইউরোপে শরণার্থী সঙ্কটের সময় এই ছবি ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে।

‘এই লোককে মনে পড়ে? গত বছর আইসিসের ছবিতে দেখা গিয়েছিল- এখন সে শরণার্থী’- লেখেন একজন।

পরবর্তীতে ছবির এই ব্যক্তিকে লাইথ আল-সালেহ হিসেবে শনাক্ত করা হয়, যিনি বাশার আল-আসাদের বিরুদ্ধে লড়াইরত মধ্যপন্থী সিরীয় বিদ্রোহীগোষ্ঠী ফ্রি সিরিয়ান আর্মির একজন কমান্ডার। সিরিয়া থেকে পালিয়ে তিনি ২০১৫ সালের অাগস্টে সিরিয়া থেকে পালিয়ে মেসেডোনিয়ায় পৌঁছান।

ঈগলস অব ডেথ মেটাল কনসার্টের ছবি

নভেম্বরে প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার পর এই খবরকে ঘিরে নানা গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

গুরুতর কিছু মিথ্যার মধ্যে রয়েছে এই ছবিটি, যেটিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় হামলার আগে বাটাক্লঁ কনসার্ট হলে ঈগলস অব ডেথ মেটালের কনসার্টের ছবি হিসেবে উল্লেখ করা হয়।

আসলে ছবিটি তোলা হয়েছিল ডাবলিনে ব্যান্ডটির কনসার্টের সময়।

প্যারিসের ফাঁকা রাস্তা

আত্মঘাতী হামলার পর প্যারিসের ফাঁকা রাস্তার ছবি হিসেবে এই ছবিটি শেয়ার করা হয়।

কিন্তু আসলে এই ছবিটি তোলা হয়েছিল সাইলেন্ট ওয়ার্ল্ড নামের একটি ছবি সিরিজের অংশ হিসেবে।

এবং শেষে… এক স্বামীর চরম প্রতিশোধ

বিবাহবিচ্ছেদের পর এক জার্মান ব্যক্তি তার সকল সম্পত্তি দু’ভাগ করে বিক্রি করছেন এমন একটি খবরে অনেকেই বোকা হয়েছেন। গত জুনে ওই ছবি দেখে অনেক গণমাধ্যমও প্রতিবেদন করে।

ইউটিউবে প্রায় ৪৫ লাখ বার দেখা হওয়ার পর জার্মান বার অ্যাসোসিয়েশন স্বীকার করে যে, তারা তাদের প্রচারণার অংশ হিসেবে মিথ্যা এই গল্পটি বানিয়েছিল।

সম্পাদনাঃ গাজী এম আহম্মেদ (বাংলার কন্ঠস্বর )

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 180 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*