Home » বিনোদন » আরেফিন রুমি আমার শারিরীক চাহিদাই মেটাতে পারেনি: কামরুন্নেসা

আরেফিন রুমি আমার শারিরীক চাহিদাই মেটাতে পারেনি: কামরুন্নেসা

বিনোদন ডেস্ক: রুমি আমার সঙ্গে প্রতারনা করেছে-এমনটাই বললেন জনপ্রিয় গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক আরফিন রুমির দ্বিতীয় স্ত্রী কামরুন্নেসা।

সম্প্রতি কামরুন্নেসাকে ডিভোর্স লেটার পাঠানো ও এ সংক্রান্ত খবর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার প্রেক্ষিতে বুধবার দুপুরে দুবাই থেকে একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালকে তিনি এই কথা বলেন।

কামরুন্নেসা বলেন, ‘আমি অক্টোবরে নিউ ইয়র্কে বেড়াতে আসি। গত ৩০ জানুয়ারি রুমির সঙ্গে আমার কথা হয়। ফোনে রুমি আমার সঙ্গে খুবই বাজে ব্যবহার করেন। এমনকি আমাকে তার বাসাতেও আসতে মানা করে। আমি এই নিয়ে তার সঙ্গে বেশি কথা বলিনি। কিন্তু বুধবার বিভিন্ন অনলাইনও সংবাদমাধ্যেমে ডিভোর্সের খবর প্রকাশ হয়েছে। এসব দেখে আমি হতবাক হয়েছি। কিছুদিন আগে আমাদের সন্তান আয়ান তার বাবার সঙ্গে কথা বলতে চাওয়ার কারণে রুমিকে ভিডিও কল করেছি বেশ কয়েকবার। কিন্তু রুমি ফোন ধরেনি। কেন রুমি আমার সঙ্গে এ ধরনের প্রতারণা করল? আমি দেশে ফিরেই তার কাছে সব প্রশ্নের উত্তর চাইব। তাছাড়া আমি এখনও কোনও ডিভোর্স পেপার পাইনি। এটা নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাব।’

তিনি বলেন, ‘রুমি হয়তো নতুন কোনোও সম্পর্কে জড়িয়েছেন। এজন্য আমাকে এবং আমার সন্তানকে এড়িয়ে চলছে। তাই আমার নামে মিথ্যা বদনাম ছড়াচ্ছে সে ও তার মা। রুমির মা আমার সঙ্গে কেমন ব্যবহার করত, তা রুমির কাছের বন্ধুরাই ভালো বলতে পারবে। তারপরও চুপচাপ থেকেছি। আর এখন আমাকে ভিভোর্স দিচ্ছে। বিয়েটা কি খেলার পুতুল নাকি?’ এছাড়া আরেফিন রুমি কি পুরুষ কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন রয়েছে। সে তো আমার শারিরীক চাহিদাও কোনদিন পুরোপুরি মেটাতে পারেনি।

তিনি আরো বলেন, ‘রুমি তার প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে কেমন আচরণ করতো তা সবাই জানেন। আমার সঙ্গেও সেই একই রকম আচরণ করার চেষ্টা করেছে । আমি তার এই আচরণের প্রতিবাদ করায় আমাকে এখন সে আর পছন্দ করে না। ডিভোর্স দিতে চায়।’

এদিকে মঙ্গলবার নিউ ইয়র্ক থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন কামরুন্নেসা। বুধবার সন্ধ্যায় তিনি পুত্র আয়ানকে নিয়ে দেশে ফিরেছেন।

প্রসঙ্গত, ইতোপূর্বে প্রথম স্ত্রী অনন্যার দায়ের করা নারী নির্যাতন মামলায় কারাগারে গিয়েছিলেন রুমি। পরবর্তীতে সমঝোতার মাধ্যেমে আদালতের নির্দেশে ২০ লাখ টাকা দিতে হয়েছে অনন্যাকে। প্রথম ঘরে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে রুমির।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 76 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*