Home » লিড নিউজ » ডায়াবেটিস-ওয়েট লস সার্জারি গবেষণায় নতুন দিগন্ত

ডায়াবেটিস-ওয়েট লস সার্জারি গবেষণায় নতুন দিগন্ত

বাংলার কন্ঠস্বরঃ যাদের ওজন অনেক বেশি তারা ব্ল্যাককারেন্ট (আঙুরজাতীয় ফল) খেয়ে এড়াতে পারেন ডায়াবেটিসের ঝুঁকি। স্কটল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব আবেরডিনের নতুন ক্লিনিক্যাল গবেষণার পেছনে মূল ধারণা ছিলো এ তথ্য।

গবেষকদের বিশ্বাস, ফলের মধ্যকার এন্টি-অক্সিডেন্ট শরীরে জমা কার্বোহাইড্রেট ও শর্করা ভাঙতে সাহায্য করে। এই এন্টি-অক্সিডেন্ট খাবার খাওয়ার পর ধমনির দেয়ালে জমা হওয়া চিনি অপসারণ করে।

যদি রক্তে শর্করার মাত্রা খুব বেড়ে যায় তখন অগ্ন্যাশয়ের উপর চাপ পড়ে। ফলে ইনসুলিনের স্বাভাবিক নির্গমণ প্রতিরোধ হয়।

গবেষকদের পরিকল্পনা অনুযায়ী, ১৬ জন ব্যক্তিকে কার্বোহাইড্রেটযুক্ত খাবার খাওয়ার পর বা আগে ২০০ গ্রাম ব্ল্যাককারেন্ট বা প্লেসবো খেতে দেওয়া হবে। তারপর তুলনা করে দেখা হবে ব্লাড সুগারের মাত্রা কতখানি কমেছে বা আদৌ কমেছে কিনা।

চিনির আসক্তি কমাতে ওয়েট লস সার্জারি
যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা জানান, ওয়েট লস সার্জারি চিনির আসক্তি বা খাওয়ার ইচ্ছে কমায়। পাকস্থলীর আকার ছোট করতে বাইপাস সার্জারি করা হয়। এর মাধ্যমে খাবার শোষণ হওয়ার আগেই অন্ত্রে পৌঁছে যায়। ইঁদুরের ওপর একটি পরীক্ষা চালিয়ে দেখা গেছে, সাধারণত ইঁদুর পেট ভরা থাকলেও খাবারে মুখ দেয়।


কিন্তু ইঁদুরদের চিনিযুক্ত খাবার দিয়ে দেখা গেছে, যেসব ইঁদুরের বাইপাস সার্জারি করা হয়েছে তারা খাবারে মুখ দেয়নি। তাদের মস্তিষ্কের স্ক্যান করে দেখা গেছে খাবারের দিকে তাকানোর পর তাদের মস্তিষ্কে ডোপামাইন হরমোন নিঃসৃত হয়নি। যা কিনা তাদের খেতে উৎসাহী করতে পারে।
গবেষকরা জানান, এই গবেষণা সার্জারি ছাড়াই চিনির আসক্তি কমানোর উপযোগী ওষুধ আবিষ্কারে সহায়তা করবে।

স্টাটিন কি ফুসফুসের অসুখও সারিয়ে তোলে?
রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর জন্য ডাক্তাররা স্টাটিন ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ দেন। এটি একইসঙ্গে দীর্ঘস্থায়ী ফুসফুসের সমস্যা সমাধান করে। চীনের গবেষকরা জানিয়েছেন, দেশটিতে ১০ লাখের এক-চতুর্থাংশ জনগণ ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজে (সিঅপিডি) আক্রান্ত। এর মধ্যে যারা স্টাটিন খেয়েছেন তাদের ৫২ শতাংশই মৃত্যুঝুঁকি কাটিয়ে উঠেছেন।
ধারণা করা হয়, স্টাটিন প্রদাহ কমায়। যা সিঅপিডির মূল লক্ষণ।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 72 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*