Home » বরিশাল » টেন্ডার নিয়ে ঠিকাদারের মাথা ফাটালেন ছাত্রলীগ নেতা

টেন্ডার নিয়ে ঠিকাদারের মাথা ফাটালেন ছাত্রলীগ নেতা

বাংলার কন্ঠস্বরঃ

শর্টগানের বাট দিয়ে পিটিয়ে এক ঠিকাদারের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে বরিশালে ছাত্রলীগ নেতা নাহিদ সেরনিয়াবাত ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ঠিকাদার মোঃ সেলিম খানকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টায় বরিশাল এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীর পাশের কক্ষে সিসিআরপি’র ১৭ গ্রুপের ১৩ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকার কাজ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই কাজের পারফরমেন্স সিকিউরিটি জমা দিতে গেলে শর্টগানের বার্ট দিয়ে আঘাত করে গুরুতর আহত করে ঠিকাদার ভিপি সেলিমকে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সেলিম এর বন্ধু মোঃ আজাদ জানান, মেহেন্দিগঞ্জের সিসিআরপি’র প্রায় ১৩ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকার একটি কাজের সর্বোনিম্ন দরদাতা হয় মেহেন্দিগঞ্জের ঠিকাদার ভিপি মোঃ সেলিম খান। ২য় সর্বোনিম্ন দরদাতা হয় বিএম কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাহিদ সেরনিয়াবাত।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ভিপি সেলিম ওই কাজের পারফরমেন্স সিকিউরিটি জমা দিতে এলজিইডি কার্যালয়ে যান। সেখানে নাহিদ পারফরমেন্স সিকিউরিটি জমা দিতে বাধাঁ দেয়। কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে নাহিদ সেরনিয়াবাত তার লোকজন নিয়ে ভিপি সেলিমের উপর হামলা চালিয়ে মাথা ফাটিয়ে দেয়। বর্তমানে সেলিম শেবাচিম হাসপাতালের ৫তলার ১৩নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধিন আছে।

এদিকে এলজিইডির একটি প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানিয়েছে, ছাত্রলীগ নেতা নাহিদ তার শর্টগানের বার্ট দিয়ে আঘাত করে ওই ঠিকাদারকে গুরুতর আহত করেছে। পরে এলজিইডির স্টাফরাই তাকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করে।

বিএম কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও মেয়াদহীন অস্থায়ী ছাত্র কল্যাণ পরিষদের (বাকসু) জিএস নাহিদ সেরনিয়াবাত জানান, ওই ঠিকাদারের কাছে সে ৫০ লাখ টাকা পায়। অনেক দিন খুজেছে পায়নি। ওই ঠিকাদারের সাথে কথাকাটির সময় এক ছেলে কলম দিয়ে আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়। অস্ত্রের আঘাতে মাথা ফাটার বিষয়টি মিথ্যা বলে তিনি জানান।

আহত মোঃ সেলিম খান জানান, টাকা পাওনার ঘটনা সাজানো। পারফরমেন্স সিকিউরিটিজমা দিতে না পারলে কাজটি নাহিদ পাবে ভেবে আমার উপর হামলা করে। এসময় তারা পারফরমেন্স সিকিউরিটি ছিনিয়ে নেয়। সুস্থ হলে এ ঘটনায় মামলা করবো।

এলজিইডির সহকারী প্রকৌশলী অলিউল ইসলাম জানান, তার পাশের কক্ষে ঝামেলা হয়েছে। পরে ডাক-চিৎকার শুনে তারা সেখানে যান। অনেক রক্ত পড়তে দেখে অফিস স্টাফ দিয়ে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ এসেছিল।

এব্যাপারে কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মোঃ শাখাওয়াত হোসেন জানান, এলজিইডি কার্যালয়ে এক ঠিকাদারের মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে নাকি ছাত্রলীগের নাহিদের লোকজন। টেন্ডার নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনাস্থলে গিয়েছিলো। তবে এখন পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করেনি।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 86 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*