Home » জাতীয় » আদালতে খালেদা, বাইরে হট্টগোল-মিছিল

আদালতে খালেদা, বাইরে হট্টগোল-মিছিল

বাংলার কন্ঠস্বর: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করতে আদালতের এজলাসকক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আর আদালত চত্বরের বিভিন্ন প্রবেশমুখে ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যেও হট্টগোল, খণ্ড খণ্ড মিছিল করছেন বিএনপির নেতাকর্মী ও বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

 

 

 

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলা দু’টির বিচারিক কার্যক্রম চলছে রাজধানীর বকশিবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের অস্থায়ী আদালতে।

 

 

 

রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় আদালত চত্বরে এসে ১০টা ৩৫ মিনিটে আত্মপক্ষ সমর্থনে এজলাসকক্ষে ঢোকেন খালেদা। এর আগে সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে গুলশানের বাসা থেকে আদালতের উদ্দেশ্যে রওনা দেন খালেদা।

 

 

সকাল সাড়ে দশটায় আদালত চত্বরে এসে পৌঁছান তিনি। পরে এজলাসকক্ষে ঢোকেন। ১০টা ৩৫ মিনিট থেকে ১০ মিনিট আসামির কাঠগড়ার সামনে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। ১০টা ৪৫ মিনিট বিচারক এজলাসে বসার পর খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া তার বসার অনুমতি প্রার্থনা করেন। আদালত অনুমতি দিলে কাঠগড়ার সামনে রাখা তার জন্য নির্ধারিত চেয়ারে বসেন তিনি।

 

 

 

পরে খালেদার পক্ষে করা একটি আবেদনের পক্ষে শুনানি করছেন তার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। এ শুনানি শেষে শুরু হবে খালেদার বক্তব্য উপস্থাপন।

 

 

 

খালেদা জিয়ার আদালতে হাজির হওয়া উপলক্ষে নিরাপত্তার স্বার্থে আদালতপাড়া ও আশপাশের এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দা বিভাগের সদস্যসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চার শতাধিক সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

 

 

 

এ নিরাপত্তার মধ্যেই আদালত চত্বরে প্রবেশ নিয়ে দফায় দফায় পুলিশের সঙ্গে বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়েছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। চকবাজার মোড় সংলগ্ন গেট দিয়ে বেশ কয়েকজন আইনজীবী ভেতরে প্রবেশ করতে চাইলে তাদের বাধা দেন চকবাজার থানার এসআই আজিজ। ১০০ জন আইনজীবীর তালিকা রয়েছে যারা ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেন বলে তিনি জানান আইনজীবীদের।

 

 

 

তারপরও আইনজীবীরা ভেতরে যেতে চাইলে হট্টগোল, হই-চই শুরু হয়ে যায়। এ সময় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) লালবাগ বিভাগের ডিসি মফিজুল ইসলাম এসে গেটটি বন্ধ করে দেন। পরে আইনজীবীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল শুরু করেন।

 

 

 

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল-২ এর সামনের রাস্তা, হানিফ ফ্লাইওভারের ঢালে জড়ো হয়েছেন বিএনপির শত শত নেতাকর্মী। তারাও খণ্ড খণ্ড মিছিল করছেন। নারী নেতাকর্মীরা রাস্তায় বসে পড়ায় যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন ঘটছে।

 

 

 

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম অর রশিদ তালুকদার জানান, খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার স্বার্থে পুরো এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য দিয়ে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) এডিসি সঞ্জিত কুমার রায় জানান, কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ও ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। স্তরে স্তরে আর্চওয়ে স্থাপন করে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেক করে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ, র‌্যাব, সাদা পোশাকের গোয়েন্দা পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চার শতাধিক সদস্য নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

 

 

 

খালেদার হাজিরাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে দলের সিনিয়র নেতারাও আদালতে উপস্থিত রয়েছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল আউয়াল মিন্টু, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 63 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*