Home » বরিশাল » ঝালকাঠি » বৈশাখী হাওয়ায় বাজারে প্রকাশ্যে জাটকা-চাপিলা ইলিশ বিক্রি

বৈশাখী হাওয়ায় বাজারে প্রকাশ্যে জাটকা-চাপিলা ইলিশ বিক্রি

 

রমজানুল মোরশেদ,ঝালকাঠি প্রতিনিধি : বাঙালির সাবজনীন উৎসব পহেলা বৈশাখ আসতে এখনও বাকি ১ দিন। তবে এরই মধ্যে রাজাপুরসহ জেলার বাজারে বৈশাখী হাওয়ায় প্রকাশ্যে চলছে জাটকা ইলিশ বিক্রি। তবে অন্যান্য সময়ের তুলনায় সামনে বৈশাখ থাকায় দাম স্বাভাবিকের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি। ১ নভেম্বর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত জাটকা আহরণ, নিধন, মজুদ ও আরোহণ আইনত দন্ডনীয় থাকলেও অধিক মুনাফার আশায় তার তোয়াক্কা করছেন না জেলেরা। ১০ ইঞ্চি থেকে ছোট সব ইলিশ ও চাপিলা জাটকার আওতায় পড়ছে। বাজারে ঘুরে দেখা গেছে জাটকার আওতায় সব ধরনের সাইজের ইলিশই বিক্রি হচ্ছে দেদারছে। কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের জন্যও জেলা মৎস্য বিভাগের তেমন কোন তৎপরতা চোখে পড়ছে না। জানাগেছে, বাংলা বছরের শুরুর (নববর্ষ) দিন ইলিশ ও পান্তা খাওয়া বাঙালির চিরচারিত নিয়মে পরিণত হয়েছে। বছরের অন্যান্য দিনগুলো বাদ গেলেও অন্তত এই দিন সকলে চায় তাদের আয়োজনে স্থান পাবে পান্তা-ইলিশ। আর সামুদ্রিক ইলিশ লবণাক্ত হওয়ায় এ অঞ্চলের মিঠা পানির রূপালি ইলিশের কদর একটু বেশি। তাই বরিশাল অঞ্চলের ইলিশের চাহিদা সারা বছর সারাদেশে। দেশের বাইরেও রয়েছে এর খ্যাতি। আর এ কারণেই ইলিশের বাজার সব সময় চড়া। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে পহেলা বৈশাখের উত্তাপ। ঝালকাঠির বাইরে থেকেও অনেকে আসছেন পহেলা বৈশাখের অনুসর্গ হয়ে ওঠা পান্তা ইলিশের ইলিশ সংগ্রহ করতে। নববর্ষ যত এগিয়ে আসছে, বাজারে কমছে ইলিশের সরবরাহ। যে পরিমাণ ইলিশ আসছে তার প্রায় সবই মজুদ করে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের কাছে গোপনে বিক্রি করছে জেলেরা। ফলে সরবারহ সংকটের অজুহাতে প্রতিদিনই ইলিশের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। ৩০ চৈত্র পর্যন্ত এ অবস্থা অব্যাহত থাকবে বলে ইলিশ সংশিষ্ট ব্যবসায়ী ও মৎস্য শ্রমিকরা জানান। ঝালকাঠি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা প্রীতিষ কুমার মন্ডল বলেন, ১ নভেম্বর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ১০ ইঞ্চি থেকে ছোট সব ইলিশ ধরা, মজুদ ও সরবরাহ নিষিদ্ধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ। এ উপলক্ষ্যে মার্চ মাসে ৬ টি ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং মৎস্য অধিদপ্তর ১২ টি অভিযান পরিচালনা করে ৪ লাখ ২৪ হাজার টাকা মূল্যের ২৩ হাজার ৬শ মিটার জাল জব্দ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 77 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*