Home » রাজনীতি » ‘দেশের ক্ষতি করে কার স্বার্থে রামপাল বিদুৎ কেন্দ্র’

‘দেশের ক্ষতি করে কার স্বার্থে রামপাল বিদুৎ কেন্দ্র’

ঢাকা: রামপাল বিদুৎ কেন্দ্র পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করবে উল্লেখ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদাজিয়া প্রশ্ন রেখেছেন- দেশের ক্ষতি করে কার স্বার্থে এ প্রকল্পটির বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

গুলশানের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন- বিদ্যুৎ প্রয়োজন, তবে তা দেশের স্বার্থের পরিপন্থি ও পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর হলে তা অবশ্যই দেশবিরোধী। বিদ্যুৎ উৎপাদনের নানা বিকল্প আছে, কিন্তু সুন্দরবনের কোনো বিকল্প নেই।রামপাল বিদ্যুৎ প্রকল্পকে গণবিরোধী আখ্যা দিয়ে এটি বাতিলের দাবি জানান খালেদা জিয়া।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, সুন্দরবনের এত কাছে স্থাপিত কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের অনিবার্য অশুভ ও মারাত্মক ক্ষতিকর। সব প্রমাণ উপস্থাপনের পরেও সরকার তার অবস্থান পরিবর্তনে শুধু অস্বীকৃতি জানাচ্ছে না, বরং আরও দ্রুত এ গণবিরোধী দেশবিরোধী বাস্তবায়নে উদ্যোগী হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হলো, এ সরকার স্বৈরাচারী বলেই জনমত বা দেশের স্বার্থ পরোয়া করে না।

তিনি বলেন, একদিকে পদ্মা, যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র পানি প্রবাহ মারাত্মকভাবে কমে গেছে। এর ফলে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে ব্যাপক মরুকরণ শুরু হয়েছে। এখন দক্ষিণাঞ্চলে বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপিত হলে সুন্দরবন ধ্বংস হলে বাংলাদেশ আর বাসযোগ্য থাকবে না। তিনি বলেন, বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের জায়গা অনেক আছে। তবে সুন্দরবনের কোনো বিকল্প নেই।

খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, এ কেন্দ্র হলে সুন্দরবনের প্রাকৃতিক পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য ধ্বংস হবে এবং পরিবেশ নষ্ট হবে, পানি দূষিত হবে। বনাঞ্চলের পশু পাখির জীবনচক্র ক্ষতির মধ্যে পড়বে। তিনি বলেন, জনগণের চাহিদা মেটানোর জন্য বিদ্যুৎ উৎপাদন সময়ের দাবি। কিন্তু সেই উদ্যোগ বাস্তবায়নে জনস্বার্থ বা জাতীয় স্বার্থ বিসর্জন দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তিনি বিকল্প বিদ্যুৎ ও বিকল্প জ্বালানির সন্ধান করার আহ্বান জানান।

বিকেল সাড়ে ৪টায় এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত শুরু হয়। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 36 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*