Home » ময়মনসিংহ » ভালুকায় প্রায় দুই হাজার গাছ কেটে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা

ভালুকায় প্রায় দুই হাজার গাছ কেটে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা

ইতি শিকদার, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ি বন এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ কাঠ পাচারকারীদল রাতের আঁধারে শাল কপিচ সহ ৫ থেকে ৬ বছর বয়সি প্রায় দুই হাজার গজারি ও শাল কপিচ গাছ কেটে চুরি করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় বন বিভাগ মামলা দায়ের করেছেন। সোমবার (২৯আগষ্ট) সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার হবিরবাড়ি মৌজার ৪৩৮, ৪১৩ ও ৪৭১ নম্বর দাগে ১১ গড় নামে বেশ কয়েকটি চালায় গভীর গজারি বন রয়েছে। একটি প্রভাবশালী ভূমি দালাল ও ভূমিদস্যূচক্র দীর্ঘদিন ধরে ওই চালা গুলো দখলের পাঁয়তারা করে আসছে। সেই ধারাবাহিকতায় গত (২২আগষ্ট) থেকে ৩ দিন ব্যাপী রাতের আঁধারে একটি সংঘবদ্ধ কাঠ পাচারকারীদল ওইসব চালা থেকে প্রায় কয়েক হাজার শাল কপিচ ও গজারি গাছ কেটে নিয়ে আগুণ ধরিয়ে দেয়। এলাকাবাসি জানান, স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল রাতের আঁধারে এসব গজারি গাছ কেটে নিলেও তারা ধরা ছোয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে ওই এলাকার আব্দুর রশিদ জানান, ৪৩৮ নম্বর দাগে আমার রেকর্ডিয় জমি রয়েছে জবর দখলের উদ্দেশ্যে সেখান থেকে মনিরের নেতৃত্বে রাতের আঁধারে ৩০/৩৫ জনের একটি সংঘবদ্ধদল গাছগুলো কেটে নিয়েছে, এবং মনিরের বিরোদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। অভিযুক্ত মনির জানান, আমার পৈতৃক (১৮একর) সম্পতির পাশেই রশিদ সাহেবের ডিমারকেশন কৃত জমি থেকে সে নিজেই গাছগুলো কর্তন করেছে আমার উপর অহেতুক মিথ্যাচার করা হচ্ছে। হবিরবাড়ি রেঞ্জের বিট কর্মকর্তা মোঃ শরিফুর রহমান খান জানান, হবিরবাড়ি মৌজার ৪৩৮ নম্বর দাগে মোট জমি রয়েছে ১ শত ১১ একর ৬৪ শতাংশ, তার মাঝে বনবিভাগের রয়েছে ৮৩ একর ৬৪ শতাংশ। ৪১৩ নম্বর দাগে মোট জমি রয়েছে ১০৩ একর ২৩ শতাংশ। এতে বনবিভাগের রয়েছে ৫৭ একর ৮৬ শতাংশ এবং ৪৭১ নম্বর দাগে মোট জমি রয়েছে ২১৭ একর ৪৭ শতাংশ। এতে বনবিভাগের রয়েছে ৯৩ একর ৩৮ শতাংশ। ২০১১ সালের মিসকেস নং ১১০(ী১া)০৮ মূলে ফরিদ আহম্মেদ ফরেষ্ট সেটেলসেন্ট অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ময়মনসিংহ স্বাক্ষরকৃত সীমানা নির্ধারণে বনবিভাগ থেকে অবমুক্ত করা ৩ একর ৫২ শতাংশ রেকর্ডিয় জমি রয়েছে স্থানীয় আব্দুর রশিদ নামে এক ব্যক্তির। তিনি জানান, ডিমারকেশনকৃত ১ ও ১০ নং প্লটের রেকর্ডিয় জমি হতে গাছগুলো কেটে নেয়ার দুইদিন পর খোঁজ হয়েছে। বন বিভাগের বিনা অনুমতিতে শাল কপিচ ও গাছ কর্তন করায় এ ব্যাপারে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 46 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*