Home » লিড নিউজ » ‘শিক্ষার্থীদের হলের দাবি নিছক নয়, যৌক্তিক’

‘শিক্ষার্থীদের হলের দাবি নিছক নয়, যৌক্তিক’

শিক্ষার্থীরা যে দাবি করছে (আবাসিক হল) এর যৌক্তিকতা আছে, এটা নিছক নয়। আমি অনুরোধ করছি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্টদের কাছে, এই বিষয়টিতে যত্নবান হবেন। সমস্যার সমাধান করবেন’। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) আবাসিক সংকট নিরসনে হল নির্মানের দাবিতে শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি সংহতি জানিয়ে ঠিক এভাবেই বলছিলেন নটরডেম কলেজের সাবেক অধ্যাপিকা এ এন রাশেদা।

শুক্রবার বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এই সংহিত সমাবেশের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। এসময় দেশের বিশিষ্ট নাগরিক সমাজের নেতৃবৃন্দ ও দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই দাবির প্রতি সংহিতি জানায়।

এসময় অধ্যাপিকা এ এন রাশেদা তার বক্তব্যে সরকারের প্রতি প্রশ্ন রেখে বলেন, “পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের আবাসিক ব্যবস্থা তাদের সাংবিধানিক অধিকার। এটা বলতে হবে কেন? এর জন্য আন্দোলন করতে হবে কেন? স্বাধীনতার পূর্বে আমরা শ্লোগান ধরেছিলাম, ‘পূর্বপাকিস্তান শ্মশান কেন আইয়ুব খান জবাব চাই’। তাহলে কি এখন আমাদের সন্তানদের শ্লোগান দিতে হবে ‘শিক্ষাব্যবস্থায় অসাম্য কেন?’

‘যে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের পক্ষে আন্দোলন করতে গিয়ে ছাত্রত্ব হারিয়েছিলেন, জেলে গিয়েছিলেন। সেই বঙ্গবন্ধুর কন্যা আজকের প্রধানমন্ত্রী কোন আদর্শে চলবেন? আমরা চাই সাম্য প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু কন্যা কাজ করবেন’।

এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. রোবায়েত ফেরদৌস শিক্ষার্থীদের দাবিতে সংহতি জানিয়ে একই সাথে শিক্ষার্থীদের আবাসিক সমস্যা সমাধানে হল নির্মাণে সরকারের আরো আন্তরিকতার আহবান জানান।

উল্লেখ, ২০০৫ সালে অনাবাসিক বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে যাত্রা শুরু করা এই প্রতিষ্ঠানের ১১টি হল প্রভাবশালীদের দখলে ছিল। ২০০৯ সালে বৃহত্তর ছাত্র আন্দোলনে সরকারের উচ্চ মহলের টনক নড়ে। ওই সময় একাধিক হল বিশ্ববিদ্যালয়কে দিতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সুপারিশ থাকলেও তা কার্যকর করেনি ঢাকা জেলা প্রশাসন। পরে ২০১১ ও ২০১৪ সালে জোরালো আন্দোলনে দুটি হল পুনরুদ্ধার হলেও তা ব্যবহার উপযোগী করতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ২০১৪ সালের ২৩ মার্চ কেন্দ্রীয় কারাগারের জমির দাবিতে জবি কর্তৃপক্ষ স্বরাষ্ট্রসচিব বরাবর আবেদন করে। কিন্তু এখনো এ বিষয়ে কোনো সাড়া মেলেনি।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 50 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*