Home » আন্তজাতিক » ট্রাম্প কন্যাই ‘ট্রাম্প কার্ড’ ইসরায়েলের

ট্রাম্প কন্যাই ‘ট্রাম্প কার্ড’ ইসরায়েলের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভাংকা ট্রাম্প সত্যিই কি ইহুদি ধর্মের অনুসারী? গত গ্রীষ্মে ইসরায়েলের ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ ইভাংকা ট্রাম্প ইহুদি ধর্মে দীক্ষা নিয়েছেন বলে স্বীকৃতি দিয়ে এক রুল জারি করে। এরপরই এ বিষয়টিকে ঘিরে সন্দেহ জোরালো হয়ে ওঠে ইভাংকার ধর্মান্তরিত হওয়া নিয়ে। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর ইসরায়েল সেই সন্দেহে পরিবর্তন ঘটিয়েছে রুলে পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়ে।

ট্রাম্প নির্বাচিত হওয়ার পর ডিসেম্বরে ইসরায়েল জানায়, ইভাংকা ট্রাম্পকে নিয়ে যে রুল জারি করা হয়েছিল; তাতে পরিবর্তন আনা হবে। বার্তাসংস্থা এপি বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে প্রশ্ন তুলে বলছে, তাহলে কী ইসরায়েলের ট্রাম্পকার্ড হতে যাচ্ছেন ইভাংকা ট্রাম্প।

ধর্মান্তরিত হওয়ার ওই ঘটনায় যারা অধিক সহনশীলতা দেখিয়েছিলেন তারাও ভ্রূ চমকাচ্ছেন ইসরায়েলের বদলে যাওয়া নীতিতে।

ইহুদি ধর্মের এক পর্যবেক্ষক বলেন, ২০০৯ সালে জেয়ার্ড কুশনারের সঙ্গে ঘর বাঁধার আগে ম্যানহাটনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেয়ে ইভাংকা ট্রাম্প একজন বিশিষ্ট গোঁড়া ইহুদি ধর্মযাজকের হাতে ইহুদি ধর্ম গ্রহণ করেন।

ইসরায়েলের ধর্মীয় আদালত গত জুলাইয়ে এক রুলে ইভাংকার ধর্মান্তরিত হওয়া নিয়ে যে রুল জারি করেছিল পরে তা বাতিল করে দেয়। যদিও এসব রুল ইভাংকার ওপর কোনো প্রভাব না ফেললেও ইসরায়েলের শক্তিশালী ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের যে স্বীকৃতি রয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এদিকে, নভেম্বরের নির্বাচনে ট্রাম্পের জয়ের পর ডিসেম্বরের শুরুতে বাতিলকৃত ওই রুলে পরিবর্তন আনার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধান ধর্মীয় কর্মকর্তা। ইসরায়েলি ধর্মীয় কমিটি এ ব্যাপারে বেশ কয়েকবার বৈঠকও করেছে।

নিউ ইয়র্কের পত্রিকা ‘দ্য জিউইস উয়িক’ এক সূত্রের বরাত দিয়ে বলেছে, ইভাংকা ট্রাম্পের ধর্মান্তরিত হওয়ার বিষয়টিকে স্বীকৃতি দেয়ায় ট্রাম্প প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল। এ ইস্যুতে ট্রাম্পের পরিবারের সঙ্গে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষের সম্পর্কের অবনতির আশঙ্কায় রুলে পরিবর্তন আনছে দেশটি।

তবে এ বিষয়ে ইসরায়েল এবং ইভাংকা ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও কোনো মন্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে এপি।

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ গ্রহণের পর ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে রোববার টেলিফোনে কথা বলেছেন ট্রাম্প। ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েলের প্রতি তার জোরালো সমর্থন রয়েছে বলে নেতানিয়াহুকে জানিয়েছেন তিনি।

ফোনালাপে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর সঙ্গে ইরানকে নিয়েও কথা বলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। একইসঙ্গে আগামী মাসে প্রথম দিকে তাকে হোয়াইট হাউস সফরের আমন্ত্রণ জানান।

দুই রাষ্ট্রপ্রধানের ফোনালাপের আগে ইসরায়েল অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমে দুই দফায় তিন হাজারেরও বেশি অবৈধ ইহুদি বসতি নির্মাণের অনুমোদন দিয়েছে জেরুজালেম কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : এপি, আরটি।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 42 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*