Home » খেলাধুলা » শাহাদাত–রুবেলের পর সানি, কঠোর হচ্ছে বিসিবি

শাহাদাত–রুবেলের পর সানি, কঠোর হচ্ছে বিসিবি

আরাফাত সানিকে নিয়ে বেশ হইচই হচ্ছে কয়েক দিন ধরে। গত মার্চের পর থেকে জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই বাঁহাতি স্পিনারের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে মামলা করেছেন এক তরুণী। ওই মামলায় সানিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে গত রোববার। কাল তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। দুই বছরের মধ্যে এ নিয়ে জাতীয় দলের তিন ক্রিকেটারের জেলে যাওয়ার ঘটনা ঘটল।
২০১৪ সালের ১৩ ডিসেম্বর মিরপুর মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে পেসার রুবেল হোসেনকে আসামি করে মামলা করেন এক তরুণী। ২০১৫ সালের ৮ জানুয়ারি রুবেল আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। দুই দিন কারাগারে থাকার পর তিনি মুক্তি পান ১১ জানুয়ারি। এই তিক্ত অভিজ্ঞতা পেছনে ফেলে রুবেল অবশ্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন। ভালো খেলে নিয়মিত হয়েছেন জাতীয় দলে।
শাহাদাত হোসেনের ঘটনা কিছুটা ভিন্ন। ২০১৫ সালের মে মাসে পাকিস্তানের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে চোটে পড়ে দল থেকে ছিটকে পড়েন এই পেসার। পুনর্বাসন চলার সময়ই কারাগারে যেতে হয় তাঁকে। ওই বছরের সেপ্টেম্বরে গৃহপরিচারিকা নির্যাতনের মামলা হয় শাহাদাত ও তাঁর স্ত্রী জেসমিন জাহানের বিরুদ্ধে। এ মামলায় ২ মাস ৮ দিন জেল খেটে ২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর জামিন পান শাহাদাত। গত বছরের ৬ নভেম্বর গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলায় শাহাদাত ও তাঁর স্ত্রীকে খালাস দেন নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল। এর আগে বিসিবি নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় সর্বশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ দিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেছেন শাহাদাত।
ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে মামলা ও কারাবাসের ঘটনায় উদ্বিগ্ন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। তবে অপরাধী খেলোয়াড়ের পাশে যে বিসিবি থাকবে না, সেটি কাল স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন তিনি, ‘এটা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। যে অন্যায় করেছে, তাকে শাস্তি পেতেই হবে। যেসব ঘটনা ঘটছে, আমরা কিন্তু নিয়মিত শাস্তি দিচ্ছি। বড় অঙ্কের জরিমানাও করা হয়েছে। তাতেও কাজ হচ্ছে না। আমাদের আরও কঠোর হতে হবে। প্রমাণসাপেক্ষে অবশ্যই তাদের নিষিদ্ধ করা হবে।’

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 30 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*