Home » আদালত ও অাইন » গৃহকর্মীদের অধিকার রক্ষায় মনিটরিং সেল গঠনের নির্দেশ

গৃহকর্মীদের অধিকার রক্ষায় মনিটরিং সেল গঠনের নির্দেশ

গৃহকর্মীদের অধিকার রক্ষায় গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতির বিধান অনুসারে ৬ মাসের মধ্যে মনিটরিং সেল গঠন করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ সংক্রান্ত একটি রুল নিষ্পত্তি করে এ আদেশ দেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

২০১৩ সালের ১৫ ডিসেম্বর ‘গৃহকর্মী শিশুরা ঘরের ভেতরে, আইনের বাইরে’ প্রথম আলোতে একটি প্রতিবেদন ছাপা হয়। এটি যুক্ত করে মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ একটি রিট করে। প্রাথমিক শুনানির পর ২০১৪ সালের ১ জুলাই হাইকোর্ট রুল দেন। রুলে একটি নীতিমালা প্রণয়নের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। এই রুলের শুনানি নিয়ে আদালত আজ রায় দিলেন।

রুলের শুনানিকালে রাষ্ট্রপক্ষ জানায়, গৃহকর্মী সুরক্ষা ও কল্যাণ নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে।

রিট আবেদনকারী পক্ষ এই নীতি যথাযথভাবে অনুসরণের আরজি জানায়। পরে আদালত রায় দেন।

মনজিল মোরসেদ প্রথম আলোকে বলেন, ২০১৬ সালের ৪ জানুয়ারি হওয়া এই নীতির ৬ ধারা অনুসারে কেন্দ্রীয়ভাবে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়কে এবং সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সভাপতি করে মনিটরিং সেল গঠন করতে সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ওই নীতিমালায় থাকা বিধান অনুসারে পরবর্তী মাসের ৭ তারিখে বেতন দেওয়া, শ্রম আইন ২০০৬ অনুসরণ, গৃহকর্মীর বয়স ১২ বছরের কম হলে হালকা কাজে নিয়োগে তার অভিভাবকের সঙ্গে আলোচনা, দুর্ঘটনা হলে ক্ষতিপূরণ দেওয়া, যৌন হয়রানির মামলা হলে সরকার পরিচালনা করবে, গৃহকর্মীর আচরণ খারাপ হলে তাকে বাদ দেওয়াসহ নীতিতে থাকা সংশ্লিষ্ট বিধানগুলোর প্রয়োগ নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 46 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*