Home » রাজনীতি » সিসিইউতে স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিচ্ছেন খালেদা জিয়া

সিসিইউতে স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিচ্ছেন খালেদা জিয়া

অনলাইন ডেস্ক // বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিমের সদস্য অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

সোমবার রাত ৮টায় বসুন্ধরা এভারকেয়ার হাসপাতালের সামনে উপস্থিত সাংবাদিকদের বিএনপি চেয়ারপারসনের সর্বশেষ অবস্থা জানান তিনি।

এই হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) চিকিৎসাধীন আছেন খালেদা জিয়া।

অধ্যাপক জাহিদ বলেন, ‘করোনারি কেয়ার ইউনিটে উনি আছেন। এই ইউনিটে যখন রোগী থাকেন, তখন তো সেখানে রোগী স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাসই নেয়।’

খালেদা জিয়া কেমন আছেন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘দেখেন আমি এখানে আসার জাস্ট কয়েক মিনিট আগে উনার সঙ্গে দেখা করে আসছি। আমি উনার সঙ্গে কথা বলে এসেছি। উনি কেমন আছেন খোঁজ নিয়েছি।’

কী কারণে শ্বাসকষ্টটা হলো প্রশ্ন করা হলে অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, ‘মানুষের যেকোনো সময়ে যেকোনো পরিস্থিতিতে শ্বাসকষ্ট হতে পারে। উনার পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে এবং সেগুলো এখানকার চিকিৎসকরা কালেকটিভলি করছেন।’

তিনি বলেন, ‘আজকে ভোরের দিকে উনি (খালেদা জিয়া) একটু শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন। উনি যখন শ্বাসকষ্ট অনুভব করেন চিকিৎসকরা পরীক্ষা করার পর তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে নেন। আপনাদের মাধ্যমে আমরা দেশবাসীর কাছে অনুরোধ করব যে, উনার রোগমুক্তির জন্য আপনারা মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে দোয়া করবেন।’

এর আগে সকালের দিকে শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে চিকিৎসকরা বিকেল ৪টায় খালেদা জিয়াকে সিসিইউতে স্থানান্তর করে।

তিনি হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এ সময় তার বাসভবন ফিরোজায় আরও আটজন ব্যক্তিগত স্টাফ করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন।

এরপর থেকে গুলশানের বাসা ফিরোজায় তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। করোনা শনাক্তের ১৪ দিন পর খালেদা জিয়ার আবারও পরীক্ষা করা হলে ফলাফল পজিটিভ আসে।

এরপর ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার জন্য গঠিত ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের নেতৃত্বে রয়েছেন অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদার।

পাঠকের মতামত...

Print Friendly, PDF & Email
Total Page Visits: 36 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*