জানা গেছে, নতুন উকিল হলেন অমিত দেশাই, যিনি সালমান খানের কাছের আইনজীবী। তিনি ২০০২ সালে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে হিট অ্যান্ড রান কেস থেকে ছাড়িয়েছিলেন। শাহরুখের ছেলেকে জেল থেকে বের করে আনার জন্য এবার সেই অমিত দেশাইকে কাজে লাগানো হচ্ছে।

এরই মধ্যে অমিত মঙ্গলবার আরিয়ানের জন্য আদালতে গিয়েছিলেন। তিনি জামিনের আবেদন দাখিল করেছেন। এরপর এনসিবি কাউন্সিল আদালত জানিয়েছে, এজেন্সি আরও এক সপ্তাহ সময় চেয়েছে। নিজেদের কথা জানানোর জন্য আরও এক সপ্তাহ সময় চেয়েছে তারা।

অমিত দেশাই বলেছেন, তার মক্কেল আরিয়ান গেল এক সপ্তাহ ধরে জেলে রয়েছেন। জামিনের আবেদন তদন্তের ওপর নির্ভর করে না। আমি জামিনের জন্য বলছি না। আমি তারিখের জন্য বলছি। প্রশাসনিক কারণে কারও মুক্তি আটকে যাবে- এটা হতে পারে না। এনসিবি তদন্ত করতেই পারে।

উল্লেখ্য, মুম্বাইয়ের একটি প্রমোদতরীর পার্টিতে মাদক সেবনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হন আরিয়ান খান। যদিও আইনজীবীকে আরিয়ান বলেছেন তিনি মাদক নেননি, তার কাছে কোনো মাদকও পাওয়া যায়নি। তবে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) দাবি করেছে, তাদের ৬ ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদে মাদক গ্রহণের কথা স্বীকার করেছেন আরিয়ান।